নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে পার পেলেন সেই এসিল্যান্ড

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৭

9go6iowe

ঢাকা : কক্ষে বসা নিয়ে বাগবিতণ্ডার জেরে ক্ষমতা দেখিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আইনজীবীকে সাজা দেয়ার ঘটনায় অনুতপ্ত হয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে পার পেয়েছেন কুড়িগ্রামের ভুড়ুঙ্গামারীর সহকারী কমিশনার (ভূমি) বিরোদা রানী রায়।

আদালত তাকে কঠোরভাবে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, আপনি ভ্রাম্যমাণ আদালত আইনের ক্ষমতা অপব্যবহার করেছেন। ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের আইনের অপব্যবহার না হয়।

বৃহস্পতিবার লিখিতভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করলে বিচারপতি মো. হাবিবুল গণি ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চ তাকে সতর্ক করে ক্ষমা করে দেন।

এর আগে গত বুধবার হাইকোর্টে হাজির হয়ে ঘটনার ব্যাখ্যা দিয়ে মৌখিকভাবে নিঃশর্ত ক্ষমা চান বিরোদা রানী।

কিন্তু মৌখিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থনা করায় আদালত উষ্মা প্রকাশ করে লিখিতভাবে ক্ষমার আবেদন করার নির্দেশ দিয়ে বৃহস্পতিবার আদেশের জন্য রাখেন।

বৃহস্পতিবার আদালতে এসিল্যান্ডের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মামুন মাহবুব।

ঘটনাটি আদালতের নজরে আনা আইনজীবী সৈয়দ মহিবুল কবির ও আইনজীবী কাজী হেলাল উদ্দিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও মামলাটির শুনানিকালে সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী জেড আই খান পান্না ভ্রাম্যমাণ আদালতের অপব্যবহার রোধে হাইকোর্টের নির্দেশনা চান।

আবেদনে বিরোদা রানী বলেছেন, ‘আমি ওই ঘটনার জন্য অনুতপ্ত। নিঃশর্ত ক্ষমা চাচ্ছি। ভবিষ্যতে আর এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না।

এসময় আদালত বলেন, আপনি মোবাইল কোর্ট আইনের অপব্যবহার করেছেন। আপনি এ ঘটনার জন্য অনুতপ্ত ? আপনি যে লিখেছেন তা কি বুঝে লিখেছেন? বিরোদা রানী রায় হ্যাঁ সূচক জবাব দেন।

এসময় আদালত বলেন, আপনারা জনগণের করের টাকায় চলেন। একজন রিকশাচালকও কর দেয়। সবার করের টাকায় চলেন আপনারা। মনে রাখবেন আপনারা জনগণের সেবক।

আদালত বলেন, বাইরের লোক এসে তো আপনার ওপর হামলা করেনি। নিরোদ বিহারী রায় একজন আইনজীবী। আপনি যে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলেন, তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বার কাউন্সিলে বলতে পারতেন। মন-মেজাজ কন্ট্রোল করতে হবে। আপনার আরও সংযত হওয়া উচিৎ ছিল। মনে রাখবেন এটা স্বাধীন দেশ।

উল্লেখ্য, দিনাজপুরের বীরগঞ্জে এসিল্যান্ডের কক্ষে বসা নিয়ে বাকবিতণ্ডার জের ধরে সিনিয়র অ্যাডভোকেট নিরোদ বিহারী রায়কে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে সাজা দেন সহকারী কমিশনার বিরোদা রানী রায়।

গত ১২ ডিসেম্বর একটি নামজারির মামলায় শুনানি করতে গেলে ৫০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয় এই আইনজীবীকে।

সাজা দেয়ার সময় এসিল্যান্ড তার বক্তব্যে, আমি আমার ক্ষমতা দেখালাম, পারলে আপনি (নিরোদ বিহারী) আপনার ক্ষমতা দেখান। এমন উক্তি করেছেন বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ওই আইনজীবী।

পরে বিষয়টি জেলা প্রশাসককে অবহিত করে স্থানীয় আইনজীবী সমিতি। এ ঘটনায় বিরোদা রানী রায়কে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় বদলি করা হয়।

ঘটনাটি আদালতের নজরে আনের আইনজীবী সৈয়দ মহিবুল কবির ও আইনজীবী কাজী হেলাল উদ্দিন।

গত ১৭ ডিসেম্বর এক আইনজীবীকে সাজা দেয়ার ঘটনায় ভুরুঙ্গামারী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) বিরোদা রানী রায়কে হাইকোর্টে সশরীরে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়।


চাটখিলে ১৫০০ শিক্ষার্থীর মাঝে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বিতরণ  

নোয়াখালীতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশ, পুলিশের বাধায় ছত্রভঙ্গ

নোয়াখালীতে ৯টি ক্লিনিক সিলগালা

রোববারের মধ্যে অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ না হলে ব্যবস্থা

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিতে চাকরি, বেতন ৭৫০০০

কুসিক নির্বাচন : আচরণবিধি ভেঙ্গে জরিমানা গুনলো রিফাত-কায়সার

চিরনিদ্রায় শায়িত গাফ্‌ফার চৌধুরী

কবিরহাটে বড় ভাইকে পিটিয়ে হত্যা:ছোট ভাই গ্রেফতার

হাতিয়ায় দুইটি ফিসিং ট্রলার জব্দ, ২০ হাজার টাকা জরিমানা

যে পদ্ধতিতে জুনে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষকদের বদলি

নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস আজ

হাতিয়ায় চোরাই গরুসহ দুইজন আটক

মিজানুর রহমান আজহারীকে নিয়ে স্ট্যাটাস, পদ হারালেন ছাত্রলীগ নেতা

প্রেমের টানে ভারতীয় তরুণী ফেনীতে

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের আগে ঢাবিতে লাশ চায় বিএনপি: কাদের

এই সম্পর্কিত আরো