উপকারী ফরমালিনে এখন ভয়াবহ আতঙ্ক

বুধবার, মার্চ ১২, ২০১৪

মো. তৌহিদুল ইসলাম : বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষের কাছে ‘ফরমালিন’ অত্যন্ত পরিচিত শব্দ। একই সাথে ভয়াবহ আতঙ্কের নামও ফরমালিন। এক সময় যার আবিষ্কার বিজ্ঞানের আর্শীবাদ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছিল, আজ তাই অভিশাপে পরিণত হয়েছে। মৃতদেহ সংরক্ষণের জন্য যে ফরমালিনের আবিষ্কার আজ তা মানুষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিচ্ছে।
বর্ণহীন ফরমাল ডিহাইড গ্যাসের দ্রবণকে ফরমালিন বলা হয়। ফরমালিন অতিমাত্রায় একটি বিষাক্ত জৈব যৌগপদার্থ। ফরমালিনের উপকারিতা অনেক। এটা সাধারণত টেক্সটাইলে, প্লাস্টিক, পেপার, রং, কনস্ট্রাকশন, চামড়া, মৃতদেহ সংরক্ষণ ও গবেষণাগারে বিভিন্ন প্রজাতির নমুনা সংরক্ষণে ব্যবহৃত হয়। ফরমালিনের ব্যবহার বিজ্ঞান ও চিকিৎসার ক্ষেত্রে খুবই যুগপোযোগী।
যদিও অসাধু ব্যবসায়ীরা অসৎ উদ্দেশ্যে ফরমালিন ব্যবহার করে। তারা অধিক লাভ ও পচন রোধ করে অধিক সময় সংরক্ষণের উদ্দেশ্যে মাছ ও প্রাণিখাদ্যে এ ধরনের বিষাক্ত দ্রব্য মিশিয়ে থাকে। দ্রুত পচনশীল মাছের পচন রোধে ফরমালিন সর্বাধিক ব্যবহৃত হয়। বিক্রেতারা মাছ সতেজ ও টাটকা রাখার জন্য এবং দীর্ঘ সময় মাছের পচন রোধকল্পে ফরমালিন মিশিয়ে থাকে। দ্রুত পচনশীলতা রোধকল্পে ড্রামে বা বালতিতে পানির সাথে ফরমালিন মিশ্রিত করে তাতে মাছ অল্প চুবানো হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ইনজেকশনের সিরিঞ্জ দিয়ে মাছের পেটে বা নাড়িভুঁড়িতে ফরমালিন ঢোকানো হয়।
ফরমালিনযুক্ত প্রাণিখাদ্য বিশেষ করে মাছ বিক্রেতারা এ বিষাক্ত পদার্থের সংস্পর্শে অধিক সময় থাকার কারণে চর্মরোগ, মাথা ব্যথা, শ্বাসকষ্ট, এলার্জি, এজমাসহ মারাত্মক রোগে আক্রান্ত হতে পারে।
ফরমালিন ও অন্যান্য কেমিক্যাল সববয়সী মানুষের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হলেও শিশু ও বৃদ্ধরা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। ফরমালিনযুক্ত দুধ, মাছ, ফলমূলসহ বিভিন্ন খাবার খেলে ক্রমান্বয়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস পায়, বুদ্ধিমত্তা কমে যায়, দৃষ্টি শক্তি হ্রাস পায়, কিডনি, লিভার ও বিভিন্ন অঙ্গ-প্রতঙ্গ নষ্ট হয়, এমনকি মরণব্যাধি ক্যান্সারসহ জটিল রোগ হতে পারে।
গর্ভবতী মহিলাদের ক্ষেত্রেও রয়েছে মারাত্মক ঝুঁকি। সন্তান প্রসবের সময় জটিলতা, বাচ্চার জন্মগত সমস্যা তথা প্রতিবন্ধী শিশুর জন্ম হতে পারে।


ডিএনসিসি হাসপাতালে ২ রোগীর শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট

ঈদের দিনে ঝরে গেল আরও ২৬ প্রাণ, শনাক্ত হাজারের নিচে

ভাসানচরে উৎসব মুখর পরিবেশে রোহিঙ্গাদের প্রথম ঈদ উদযাপন

খালেদা জিয়ার ঈদ সিসিইউতে

ঈদ জামাতে করোনামুক্তির জন্য বিশেষ দোয়া

গৃহবন্দী ঈদ : ছিল না চিরাচরিত কোলাকুলি আর করমর্দন

দেশবাসীকে প্রধানমন্ত্রীর ইদ শুভেচ্ছা

লাশের মিছিলে আরও ৩১ , শনাক্ত ১২৯০

ফেসবুকে তরুণীদের প্রেমের ফাঁদের শিকার ধনাঢ্য তরুণরা

গাজায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত বেড়ে ৮৪

ফের বাড়ছে লকডাউন, বিশেষ ক্ষমতা পাচ্ছে পুলিশ

১৭ তম বিয়ের জন্য প্রস্তুত ১৫১ সন্তানের পিতা

হোটেল রুমে নারীর সঙ্গে বাবুলকে দেখে চমকে উঠেন মিতু

কোম্পানীগঞ্জে কার্টুন দেখা নিয়ে ঝগড়া অভিমানে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা  

নোয়াখালীর তিন গ্রামে ঈদের নামাজ আদায়

এই সম্পর্কিত আরো