পদত্যাগ করার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি: শিক্ষামন্ত্রী

শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৮

190122_1

ঢাকা : শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ নিয়ে কিছু গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার করা হচ্ছে। গুঞ্জন রয়েছে পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন তিনি। তবে এ নিয়ে অপপ্রচার না চালানোর আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

তিনি বলেন, আমার পদত্যাগ করা নিয়ে কিছু অনলাইনে নিউজ প্রকাশ করা হয়েছে। পদত্যাগের ফাইল নাকি প্রধানমন্ত্রীর টেবিলে জমা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি সফর থেকে দেশে ফিরলেই আমি পদত্যাগ করতে যাব।

শনিবার রাজধানীর একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষামন্ত্রীর কাছে পদত্যাগ করার বিষয়টি জানতে চাওয়া হলে তিনি একান্তে এসব কথা জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এসব সংবাদের কোনো সত্যতা ও ভিত্তি নেই। আমার পদত্যাগ করার মতো কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। কোনো অন্যায়কারীকে আমরা প্রশ্রয় দেই না। শক্তহাতে তা প্রতিরোধ করা হচ্ছে। আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য কিছু গণমাধ্যমে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে।

এসব বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ থেকে সর্বসাধারণকে বিরত থাকার আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এ বিষয় নিয়ে গতকাল সিলেটে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে তিনি ব্যাখ্যাও দিয়েছেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, এবারের এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিন থেকেই প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ উঠেছে। এমন প্রেক্ষাপটে শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ নিয়ে নানাভাবে গুঞ্জন ওঠে। গত সপ্তাহে পদত্যাগ করতে শিক্ষামন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর কাছেও গিয়েছিলেন বলে তার মন্ত্রণালয়ের একাধিক কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন। প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে কঠোর হওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী পরামর্শ দিয়েছেন বলেও তারা জানান।

এর আগে ‘প্রশ্নফাঁসই যদি হয় নিয়তি, দুর্নীতিবাজ শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ নয় কেন’? ‘প্রশ্নপত্র ফাঁস কেন? শিক্ষামন্ত্রী জবাব চাই’ ও প্রশ্নপত্র ফাঁস কেন শিক্ষামন্ত্রী জবাব চাই’ লিখিত এমন প্ল্যাকার্ড নিয়ে প্রতিবাদ ও মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা।

নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এই প্রতিবাদ ও মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা। ‘সচেতন অভিভাবক ও ভুক্তভোগী ছাত্রছাত্রীবৃন্দ’ ব্যানারে ওই মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন চলাকালে নারায়ণগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী সুমাইয়া খানম বলেন, নিজেরা প্রশ্নপত্র ফাঁস বন্ধ করতে পারছেন না অথচ কোচিং সেন্টার বন্ধ করে দিয়েছেন। কোচিং সেন্টার প্রশ্নপত্র ফাঁস করে না।

মহিলা কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী রূপা বলেন, প্রশ্ন ফাঁস হলে সারাবছর আমরা কি জন্যে পড়ালেখা করব? তাছাড়া এই সময় কোচিং বন্ধ রাখলে আমাদের পড়ায় বিঘ্ন ঘটছে। আমাদের আইসিটিসহ কঠিন সাবজেক্টগুলো পড়ার জন্য বাসায় টিউটর রাখার মতো সামর্থ্য নেই। অবিলম্বে আমরা আমাদের সমস্যার সমাধান করার দাবি জানাচ্ছি।

মানববন্ধনে অভিভাবক নাসরিন আক্তার বলেন, আমাদের ছেলে মেয়েরা সারা বছর পড়ালেখা করে যা রেজাল্ট করছে পরীক্ষার আগের দিন প্রশ্ন ফাঁসের কারণে আরেক ছাত্র একই রেজাল্ট করছে। এভাবে চললে কি ভবিষ্যৎ দাঁড়াবে আমাদের সন্তান তথা দেশের আগামী প্রজন্মের?

তিনি আরো বলেন, স্কুল কলেজের শিক্ষার মান পরিপুর্ণ হয় না বিধায় আমাদের সন্তানদের কোচিং এ প্রেরণ করতে হচ্ছে। সেটিও যদি বন্ধ করে দেয় তাহলে কি ফাঁসকৃত প্রশ্ন দিয়েই পরীক্ষায় পাশ করতে হবে আমাদের সন্তানদের? প্রশ্ন রইল শিক্ষামন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীর অভিভাবক আফসানা আক্তার বলেন, কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকায় আমাদের সন্তানদের পড়া লেখার মান নষ্ট হচ্ছে। আমরা আমাদের সন্তানদের ঠিকভাবে লেখাপড়া করাতে চাই। অবিলম্বে কোচিং সেন্টার খুলে দেওয়া হোক।


রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে ডেলটার বিপজ্জনক প্রভাব

দেশে একদিনে ৮৫ মৃত্যু, ৭২ দিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত

করোনা ও উপসর্গে ১১ জেলায় মৃত্যু অর্ধশতাধিক

হাতিয়ায় আওয়ামীলীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

হাতিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসে ভয়াবহ অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ

নোয়াখালীতে আরও ১১৫ জনের করোনা শনাক্ত

নোবিপ্রবি লকডাউন ঘোষণা

পরিকল্পিতভাবেই এগোচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী

একনেক সভায় ১০ প্রকল্পের অনুমোদন

বেগমগঞ্জে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল কাপড় ব্যবসায়ীর, আহত ২

নোয়াখালীতে করোনা আরও ৬৯ জনের

৭ জেলায় ৭ দিনের লকডাউন মঙ্গলবার থেকে

নোয়াখালীতে অস্ত্রসহ ১২ মামলার আসামি গ্রেপ্তার

নোয়াখালীতে ২৪ ঘন্টায় করোনা শনাক্তের হার ২৩ শতাংশ

ওবায়দুল কাদেরকে কটূক্তিকারীর শাস্তির দাবিতে নোয়াখালীতে বিক্ষোভ মিছিল

এই সম্পর্কিত আরো